ডোমেইন ও হোস্টিং এর মধ্যে পার্থক্য

ডোমেইন ও হোস্টিং এর মধ্যে পার্থক্য

ধরে নিন আমি একটি চলমান হোটেল (মানে ছোট্ট একটা গাড়ীতে করে খাবার বিক্রি করি) খুলে ফেললাম, খাবার কোয়ালিটি ভালোই দিলাম, আপনি তিন চারদিন এসে বিরিয়ানী খেয়ে দেখলেন আমার বিরিয়ানী অন্যান্য জায়গার থেকে যথেষ্ট ভালো, কিন্তু যখন আপনি আপনার বন্ধুদের আমার হোটেলের নাম ও ঠিকানা দিতে যাচ্ছেন তখন হোটেলের নাম আর লোকেশন দিতে পারছেন না কেননা আমি আমার হোটেলে কোনো ব্যানার রাখিনি যাতে হোটেলের নাম ঠিকানা দেয়া থাকে! ইতিমধ্যে আমিও ব্যাপারটা উপলব্ধি করে হোটেলের নাম রেখেছি ” https://www.globalallnews.com/ “, আর এই নামটিকে অফিসিয়ালি রেজিস্টার করে দিয়েছি, যার মানে হলো আর কেউ ওই নামে হোটেল খুলতে পারবে না, তাহলে এখন যদি কেউ “globalallnews.com” খোঁজে তবে তাকে আমার হোটেলেই আসতে হবে. এখানে হোটেল =আমার ওয়েবসাইট , যার নাম হল globalallnews.com আর

globalallnews.com = ডোমেইন/নাম(যেটি আমি ইতিমধ্যে রেজিস্টার করেছি ). যাক এতক্ষনে আমি আমার হোটেলের নাম দিয়েছি, কিন্তু এখন আমার সমস্যা অন্য জায়গায়, আমার মনে হচ্ছে এরকম ছোট গাড়িতে করে ঘুরে ঘুরে বিক্রয় করার চেয়ে যদি একটা ঘর/বাসা ভাড়া নিতে পারি তবে তাতে আমি লোকেদের বসাতে পারবো খাবার জন্য, হোটেলটিকে ঠিক মত সাজাতে বেশকয়েকটি চেয়ার টেবিল, বাসন এসব লাগবে, এসব রাখার জন্যও তো একটি ঘর/বাসা ভাড়া নেয়া দরকার। এখানে ঘর/বাসা ভাড়া নেয়া = হোস্টিং যেমন আমার হোটেলের মালপত্র রাখার জন্য আমি একটি ঘর ভাড়া নিয়েছি , তেমনি আপনাকে একটি ওয়েবসাইটের ডাটা, ইমেজ এসব রাখার জন্য হোস্টিং কিনতে হবে, ইন্টারনেটের ভাষায় এই ঘর/বাসা ভাড়া নেয়া কে বলে হোস্টিং, মোট কথা হলো ডোমেইন হলো আপনার ওয়েবসাইট এর রেজিস্টার্ড নাম, আর হোস্টিং হলো আপনার ওয়েবসাইটের তথ্য রাখার জায়গা। আশা করি অল্প হলেও ধারণাটা দিতে সক্ষম হয়েছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *